জানুন, চিকেন পক্স এ আপনার কি কি করণীয়

শীতকাল শেষের পথে, আসছে বসন্তকাল|ঋতু পরিবর্তনের এই সময়টাই বিপদ ডেকে আনছে অনেকের ক্ষেত্রে| কারণ ইতিমধ্যেই চিকেন পক্স বা গুটি বসন্ত রোগে আক্রান্ত হয়েছেন অনেকে|সাবধান না হলে যে কেউ এই রোগে আক্রান্ত হতে পারে|

চিকিত্সকদের মতে চিকেন পক্স মারণ রোগ না হলেও এই রোগে আক্রান্ত রোগীদের শারীরিকভাবে ভীষণ রকম ভুগতে হয়| প্রথমে মুখে ও গলায়, পরে সারা শরীরে গুটি বসন্ত ছাপ ফেলে|ছোট ছোট ফোস্কা বেরোতে শুরু করে সারা শরীরে|শুধু তাই নয়,শরীরের মধ্যে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গপ্রত্যঙ্গেও গুটি বসন্ত বের হয় যা এক থেকে দু’ সপ্তাহ পর্যন্ত স্থায়ী হয়|

চিকেন পক্স বা গুটি বসন্ত বায়ু বাহিত একটি রোগ|স্বাস প্রশ্বাসের মাধ্যমে সংক্রমণ ঘটে|এই রোগের জন্য দায়ী ভাইরাসের নাম ভারিসেলা জসটার(Varicella Zoster)| শীতকালে এই ভাইরাস ঘুমন্ত অবস্থায় থাকে, আবার গরমকালে এরা বাঁচতে পারেনা| সাধারণত১৮ থেকে ২৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা এই ভাইরাস বৃদ্ধি হওয়ার আদর্শ সময়; যে কারণে শীতের শেষে এবং বসন্তের শুরুতে অনেকে চিকেন পক্সে আক্রান্ত হন|

Dr. Amitava Nandiবিশিষ্ট ভায়রোলজিস্ট অমিতাভ নন্দী জানিয়েছেন গুটি বসন্ত শরীরে বের হওয়ার চারদিন আগে থেকে প্রথম চারদিন আক্রান্ত ব্যক্তির থেকে সংক্রমণ ছড়াতে পারে|ফলে এই রোগ থেকে রেহাই পেতে আক্রান্ত ব্যক্তির থেকে দুরে থাকতে হবে|যেহতু গুটি বসন্ত মুখ গব্হর ও খাদ্যনালিতে বের হয়,তাই খাবার খেতে অসুবিধা হয়|এক্ষেত্রে রোগীকে গলানো খাবার খেতে হবে|গুটি বসন্তের ফোস্কা গুলিতে কোনভাবেই চুলকোনো বা নখের আঁচর দেওয়া যাবেনা| তাহলে সেখানে ঘ হয়ে বিপদ ঘটতে পারে|যতদিন না রোগ সারে বাইরে না বেরনই ভালো|সঙ্গে চিকিত্সকের পরামর্শ নেওয়া উচিত|

 

Dr. Shyamashish BannerjiApollo Hospital এর মেডিসিন বিশেষজ্ঞ শ্যামাশিস বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, গুটি বসন্ত নিয়ে অনেকের মধ্যে বেশ কিছু ভ্রান্ত ধারণা কজ করে|যেমন অনেকেই একে দেবী ভর করেছে বলে মনে করেন| যে কারণে নিরামিষ খাবার রোগীকে খাওয়ানো হয়|এই বিষয়টি সম্পূর্ণ ভ্রান্ত ধারণা|কোনো ব্যক্তির চিকেন পক্স হলেশরীরে প্রোটিনের অভাব ঘটে|ফলে প্রোটিনযুক্ত আমিষ খাবার যেমন মাছ, মাংস বা ডিম খাওয়া উচিত|এই রোগ যাতে না হয় তার জন্য সবার ভাক্সিন নেওয়া প্রয়োজন|আবার আক্রান্ত ব্যক্তির সঠিক চিকিত্সানা হলে পরে হারপিস হতে পারে যা অত্যন্ত যন্ত্রনাদায়ক এবং ক্ষতিকর|

You can share this post!

...