শর্তসাপেক্ষ অনুমোদন পেলো অ্যালঝাইমার্সের ওষুধ

 

চিকিৎসাবিজ্ঞানে অগ্রগতির সাথে সাথে আবিষ্কার হচ্ছে নানা জীবনদায়ী ওষুধ। দাবি করা হচ্ছে যে, ক্যান্সারের মতো মারণ রোগের ওষুধও অনেকক্ষেত্রেই তৈরী হয়ে গেছে। কিছু ক্ষেত্রে তা প্রাণীদেহে পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করাও হয়েছে। সেইরকমই এবার শর্তসাপেক্ষ অনুমোদন পেলো অ্যালঝাইমার্সের ওষুধ সম্প্রতি চীনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বাড়িতে তৈরী এক ধরণের সমুদ্র শৈবাল থেকে একধরণের ওষুধ তৈরী করা হয়েছে যা অ্যালঝাইমার্সের চিকিৎসায় এক অন্য মাত্রা এনেছে। জানা গেছে, আগামী সপ্তাহ থেকেই বাজারে উপলব্ধ হবে এই ওষুধটি।

 

চীনের ন্যাশনাল মেডিক্যাল প্রোডাক্টস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন জিভি-৯৭১ নামক ওষুধটির শর্তসাপেক্ষ অনুমোদন দিয়েছে তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বাজারে অফিসিয়াল লঞ্চ করার জন্য একেবারে তৈরী সেই ওষুধ। জানা গেছে, নতুন ওষুধটি হালকা থেকে মাঝারি ধরণের অ্যালঝাইমার্সের জন্য কার্যকরী। যেসব রোগী মাইল্ড থেকে মডারেটভাবে এই রোগে আক্রান্ত তাদের ক্ষেত্রে চেতনা ফেরানোর জন্যই আবিষ্কৃত হয়েছে এই ওষুধটি। ডিসেম্বরের শেষদিকে থেকেই চীনের বাজারে এসে যাবে এই ওষুধ এরপর ওষুধের চাহিদা অনুযায়ী বাইরে রপ্তানির কথা চিন্তা করবেন, জানালেন এই ওষুধ তৈরী করা প্রাইভেট ফার্মটি। জানা গেছে, এর আগে প্রায় ৩২০ ধরণের ওষুধ অ্যালঝাইমার্সের জন্য বিভিন্ন ফার্মাসিউটিক্যালস থেকে বানানো হয়েছে। কিন্তু সব ওষুধকে পিছনে ফেলে একমাত্র এই ওষুধটিই লাভ করেছে শর্তসাপেক্ষ অনুমোদন। খয়েরি রঙের সমুদ্র শৈবাল থেকে তৈরী কার্বোহাইড্রেট বেসড এই ওষুধটি বিশ্বের প্রথম ওষুধ যা অ্যালঝাইমার্সের মাল্টি-টার্গেটিং

 

জানা গেছে, এই ওষুধের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল ইতিমধ্যেই করা হয়েছে গেছে। ৮৮১ জন রোগীর উপর পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হয়েছে এই ওষুধটি গত বছরের জুলাই মাস থেকে রোগীদের উপর করা হচ্ছে এই পরীক্ষাটি। দেখা গেছে, এই ওষুধের প্রয়োগের ফলে সেইসব রোগীর চেতনা অনেকটাই কন্ট্রোলে রয়েছে। তবে এই ওষুধ কাজ করছে তাদের উপরেই যারা গত মাস ধরে মাইল্ড থেকে মডারেট পরিমান অ্যালঝাইমার্সের শিকার হয়েছেন চিকিৎসকেরা জানিয়েছে, এই ওষুধটি মূলত মাইক্রোবায়োটার রিব্যালেন্স করতে সাহায্য করছে।এর সাথে সাথে নিউরো ইনফ্লেমেশন অর্থাৎ স্নায়ুর প্রদাহ কমাতেও সাহায্য করছে। অ্যালঝাইমার্সের ওষুধ হিসেবে এই ওষুধের আবিষ্কার এই রোগের চিকিৎসা পথ আরও মসৃন করবে আশা সকল চিকিৎসকদের।

You can share this post!

...

Loading...